বিনোদন ডেস্ক : তরুণ মেধাবী অভিনেতা ও নাট্যকার ইমতিয়াজ কামরান তালুকদার। সৈয়দ জুনেদের মঞ্চ নাটক ‘এইডস কে না বলুন’ এর মধ্য দিয়ে তার নাটকের পথচলা শুরু। অসম্ভব সুন্দর হাসির অধিকারী অভিনেতা ও নাট্যকার এই সফল ব্যক্তিটি সিলেট সাংস্কৃতিক অঙ্গনের বিভিন্ন শাখায় অবদান রেখে চলেছেন।

মাঝে বেশকিছু দিন শোবিজ অঙ্গনের বাইরে ছিলেন তিনি। দীর্ঘ বিরতির পর আবারও শোবিজে ফিরেছেন এই অভিনেতা। ফিরেই বিজ্ঞাপন ও নাটকে অভিনয় শুরু করেছেন।

সম্প্রতি জনপ্রিয় পরিচালক পার্থিব মামুনের ‘বলদা পরিবার এখন সিলেটে’ নাটকের শুটিং সম্পন্ন করেন এই অভিনেতা। অভিনয়কে ভালোবাসেন এবং সব সময় কর্মব্যস্ত থাকতে পছন্দ করেন তিনি।

মিডিয়ায় ফেরা ও কাজের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আসলে শোবিজে কাজের থেকে বিরতি নেয়ার বিশেষ কোনো কারণ ছিল না। কিছুদিন পরিবারকেই পুরোপুরি সময় দিয়েছি। আমার রক্তে অভিনয়, অভিনয় ছেড়ে দূরে থাকাটা আমার জন্য সম্ভব নয়। এটা আমার অনেক ভালোবাসার জায়গা, এখানকার সবাই আমাকে যথেষ্ঠ ভালোবাসেন, স্নেহ ও সম্মান করেন। বলতে পারেন এই ভালোলাগা আর ভালোবাসার টানেই ফিরেছি। এখন থেকে নিয়মিত কাজ করব। কারণ কাজে ফিরে মনে হচ্ছে এ জায়গাটা তো আমার। এখানে আমাকে অবশ্যই নিয়মিত হতে হবে এবং সে চেষ্টাই থাকবে এবার। এখন শুধু অভিনয়ই করতে চাই।

মঞ্চ নাটকে অভিনয়ের কারণে ক্যামেরার সামনে দাঁড়াতে কোন সমস্যায় পড়তে হয়নি কামরানকে। অভিনেতা না হলে কি হতেন জানতে চাইলে কামরান বলেন, পড়াশোনা শেষ করে হয়তো লন্ডনে চলে যেতাম।

অনেকটা নিজের শখের পরিপূর্ণতা দেয়ার জন্য বিভিন্ন নামিদামি পত্রিকা ও ফ্যাশন ম্যাগাজিনে মডেলিং-এর কাজও করছেন তিনি।

কামরানের লেখা বেশ কয়েকটি গল্প ও স্ক্রিপ্ট নিয়ে নাটকও নির্মিত হয়েছে। তিনি বলেন, এবার সেদিকেও মনোযোগ দেবো । আর পরিচালনায় এখনই নয়। আগে তো অভিনয় করি, এরপর যখন মনে হবে আমি পরিপক্ক হয়েছি, ক্যামেরার পেছনে দাঁড়ানোর যোগ্যতা হয়েছে, তখনই বিষয়টি নিয়ে ভাববো।

কামরান ছোটবেলা থেকেই সিলেটের পরিচিত মুখ। সিলেট এমসি কলেজ থেকে পলিটিক্যাল সায়েন্সে পোস্ট গ্রাজুয়েশন সম্পন্ন করে তিনি তরুণ উদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ী হিসেবে নিজেকে তৈরি করেন। ব্যবসার কাজে এরই মধ্যে তিনি পোল্যান্ড, রাশিয়া, মালয়েশিয়া, দুবাই, সৌদ-আরব, থাইল্যান্ড, মায়ানমার, নেপাল, ভূটান ও ইন্ডিয়া সফর করেছেন।

ব্যবসার পাশাপাশি তিনি সমাজসেবায়ও আত্মনিয়োগ করেছেন। সিলেট বিভাগীয় শ্রেষ্ঠ যুব সংগঠক অ্যাওয়ার্ড এবং জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ তরুণ উদ্যোক্তা অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্ত যুব সংগঠক তিনি।

ইমতিয়াজ কামরান অভিনীত উল্লেখযোগ্য মঞ্চ নাটক হলো সুবচন নির্বাসনে, স্বপ্ন বাজ, চাকা, রক্তাক্ত একাত্তরে, বিরাঙ্গনা সুলেখা, ভন্ড পাগল ইত্যাদি।

টিভি নাটকের মধ্যে আপন জন, ঝুমকা, অবশেষে, তারুণ্যের উচ্ছ্বাস, অপেক্ষা, একটি রাতের গল্প, শুটিং চলছে ০২, শেষ বিকাল, আলো ছায়া, মনের মানুষ, আপন ভূবণ ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য।

ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘উল্টা পালটা’ সহ বেশকিছু মিউজিক ভিডিওতেও অভিনয় করেছেন এই গুনী শিল্পী।

এছাড়া ইমপ্রেস টেলিফিল্ম এর ব্যানারে নির্মিত সিলেটের বহুল আলোচিত রাজন হত্যার কাহিনী অবলম্বনে ক্রাইম স্টোরিতে কাজ করে প্রশংসীত হয়েছেন তিনি। চ্যানেল আই এর একটি নাটকসহ আরো বেশকিছু কাজ হাতে আছে বলে জানান তিনি।